ঢাকা ০৬:২১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভূঞাপুরে নারীর মরদেহ উদ্ধার, সিএনজি চালক আটক

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:২৬:১৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ অক্টোবর ২০২২ ১৮৮ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক আজকের একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে সড়কের পাশ থেকে রক্তাক্ত মালা (৩২) নামের এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে ভূঞাপুর থানা পুলিশ। বুধবার (১৯ অক্টোবর) ভোরে উপজেলার ভূঞাপুর-তারাকান্দি মহাসড়কের অর্জুনা ইউনিয়নের তারাই কবরস্থানের পাশ থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত মালা জগৎপুড়া গ্রামের তারা খানের মেয়ে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ধর্ষণের পর তাকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মোবারক নামে এক সিএনজি চালককে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মালা খাতুন নিজ বাড়ি থেকে গোপালপুর উপজেলার নলিন বাজারে যাওয়ার জন্য বের হয়। এসময় সে মোবারকের সিএনজিতে আরোহন করে। রাতে সে আর বাড়ি ফিরেনি। পরে স্থানীয় লোকজন বুধবার ভোরে ভূঞাপুর-তারাকান্দি মহাসড়কের তারাই কবরস্থানের পাশে মালাকে রক্তান্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে উদ্ধার করে ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে ভূঞাপু্র থানা অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম বলেন, মালা নামের এক নারীর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্ত চলমান রয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মোবারক হোসেন নামে সিএনজি চালককে আটক করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ভূঞাপুরে নারীর মরদেহ উদ্ধার, সিএনজি চালক আটক

আপডেট সময় : ০৯:২৬:১৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ অক্টোবর ২০২২

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে সড়কের পাশ থেকে রক্তাক্ত মালা (৩২) নামের এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে ভূঞাপুর থানা পুলিশ। বুধবার (১৯ অক্টোবর) ভোরে উপজেলার ভূঞাপুর-তারাকান্দি মহাসড়কের অর্জুনা ইউনিয়নের তারাই কবরস্থানের পাশ থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত মালা জগৎপুড়া গ্রামের তারা খানের মেয়ে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ধর্ষণের পর তাকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মোবারক নামে এক সিএনজি চালককে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মালা খাতুন নিজ বাড়ি থেকে গোপালপুর উপজেলার নলিন বাজারে যাওয়ার জন্য বের হয়। এসময় সে মোবারকের সিএনজিতে আরোহন করে। রাতে সে আর বাড়ি ফিরেনি। পরে স্থানীয় লোকজন বুধবার ভোরে ভূঞাপুর-তারাকান্দি মহাসড়কের তারাই কবরস্থানের পাশে মালাকে রক্তান্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে উদ্ধার করে ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে ভূঞাপু্র থানা অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম বলেন, মালা নামের এক নারীর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্ত চলমান রয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মোবারক হোসেন নামে সিএনজি চালককে আটক করা হয়েছে।